যে ৫ বিষয় শেখাবেন বিবাহিতরা

আপডেট: 2019-04-20 12:59:42

বিয়ে দুজন মানুষকে কাছে আনে। পারিবারিকভাবে বিয়ে হলে দুজন মানুষের মধ্যে আগে থেকে জানাশোনা কম থাকে। অনেকের মধ্যে বিয়ে নিয়ে নানা ধরনের ভয় কাজ করে। তাই কাছের বন্ধু, ছোট ভাই বা স্বজনদের কারও বিয়ের আগে বিবাহিত ব্যক্তিরা কিছু পরামর্শ দিতে পারেন, যা তাঁদের দাম্পত্য সম্পর্ককে সুন্দর করে তুলতে পারে।

জেনে নিন এ রকম ৫ পরামর্শ
হুট করে ভালোবাসা হয় না: প্রেমের বিয়েতে আগে থেকে দুজনের চেনাজানা থাকে। কিন্তু পারিবারিকভাবে আয়োজন করা বিয়েতে দুজনের মধ্যে সম্পর্ক তৈরি হতে একটু সময় লাগতে পারে। তাই কোনো কিছুতে তাড়াহুড়া না করার পরামর্শ দিতে পারেন। পরস্পরকে জানা বা বোঝার জন্য সময় দিতে হবে। দুজন একসঙ্গে থেকে দুজনকে ভালোভাবে জানতে পারলে সম্পর্ক দৃঢ় হবে। জন্মাবে অনুরাগ, ভালোবাসা। তাই বিয়ের পর কোনো কিছুতেই তাড়াহুড়ো না করা ভালো। পরস্পরের প্রতি অভিযোগ না করে ধৈর্য নিয়ে অপেক্ষা করার পরামর্শ দিতে পারেন। অনেকটা পুরোনো ধ্যান–ধারণা মনে হলেও আপনার দেওয়া সুপরামর্শ নতুনদের দাম্পত্য জীবনকে সুন্দর করে তুলবে।

বাইরে দেখে বিচার কোরো না: ভালোবাসা বা সম্পর্কের দৃঢ়তার ক্ষেত্রে চেহারার চেয়ে মনকে গুরুত্ব দিতে হবে। সুন্দর চেহারা কয়েক মাস হয়তো মনকে রোমাঞ্চিত করবে, কিন্তু বুদ্ধিমত্তা আর সুকোমল হৃদয় আজীবনের। সুন্দর দাম্পত্যের জন্য মনের সঙ্গে মনের মিল বাড়ানোর পরামর্শ অবশ্যই দেবেন। সুন্দর ব্যক্তিত্ব গঠনে এবং দুজনের মধ্যে সুসম্পর্ক তৈরিতে আপনার দেওয়া পরামর্শ তাঁদের কাজে আসতে পারে।

ভালোবাসার নাম প্রতিশ্রুতি: বিয়ে হয়ে গেলে পেছনে ফেরার আর উপায় নেই। এটা একটা আজীবনের প্রতিশ্রুতি। এ কথাটাই আপনি বোঝাতে পারেন। সুখে–দুঃখে পরস্পরের পাশে থাকা, দায়িত্ব ও কর্তব্যবোধ থেকে দুজনের প্রতি মমত্ববোধ তৈরি হয়। কাছের মানুষের জন্য আপনি তাঁদের প্রতিদিন প্রেমে পড়ার পরামর্শ দিতে পারেন। তাঁদের বলতে পারেন, এটি এমন এক প্রতিশ্রুতি, যাতে আপনি প্রতিদিন একই ব্যক্তির সঙ্গে নতুন করে প্রেমে পড়বেন। নিত্য প্রেমের এ খেলার নামই সংসার।

বিশ্বাস অর্জন: ‘বিশ্বাস’ এমন এক শব্দ, এমন এক শক্তি, জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রেই এর প্রয়োজন রয়েছে। প্রতিটি স্বপ্ন ও সম্ভাবনাকে কার্যকর করে তুলতে গেলেও প্রয়োজন বিশ্বাসের। বিশ্বাস যে একটা সম্পর্কের সব থেকে শক্তিশালী দিক, সেটা আপনি নিজের জীবন থেকে শেখার পরামর্শ দিতে পারেন। বিশ্বাস সব সময়ই দুজন মানুষের মধ্যে যোগাযোগ করতে আর সেটা দৃঢ় করতে সাহায্য করে। এই বিশ্বাস আপনাকে পথ দেখাবে বন্ধুত্বের।

রোমান্টিক সম্পর্ক অফুরান: পারিবারিকভাবে আয়োজন করা বিয়েতে যে রোমান্স ও অনুভূতি থাকে, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। পরিবারের সবাইকে নিয়ে আনন্দ করে একটি বিয়ে হয়। এতে দুজনের মনে একধরনের অনুভূতি কাজ করে। ধীরে ধীরে দুজনের নতুন ভুবনে একটু একটু করে আবিষ্কারের সুযোগ তৈরি হতে থাকে। প্রতিদিন কোনো না কোনো বিস্ময় অপেক্ষা করবে। নতুন একজনের সঙ্গে পরিচয়, বন্ধুত্ব, আত্মার বন্ধনের যে সম্পর্ক তৈরি হয় তা জীবনভর চলতেই থাকে। তথ্যসূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া।